খালেদা প্রসঙ্গে বিল ক্লিনটন বললেন ওয়ার্ল্ড পলিটিক্স ইজ নাউ ডিফিকাল্ট - Chuadanga News | চুয়াডাঙ্গা নিউজ | ২৪ ঘন্টাই সংবাদ

Sidebar Ads

test banner

Breaking

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Sunday, July 1, 2018

খালেদা প্রসঙ্গে বিল ক্লিনটন বললেন ওয়ার্ল্ড পলিটিক্স ইজ নাউ ডিফিকাল্ট




বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া প্রসঙ্গে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন বলেছেন, ওয়ার্ল্ড পলিটিক্স ইজ নাউ ডিফিকাল্ট। জাসাসের  কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক আন্তর্জাতিক সম্পাদক ও আমেরিকার ডেমোক্র্যাটিক পার্টির রেজিস্টার্ড ভোটার গোলাম ফারুক শাহীনকে এসব কথা বলেন বিল ক্লিনটন। তিনি বলেন, ‘আমি জানি সবকিছু’। নিউইয়র্ক সিটি থেকে ৪০ মাইল দূরে হান্টিংটন সিটির একটি কর্মসূচিতে তিনি  এসব কথা বলেন। অন্যদিকে, বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও তাঁর বিরুদ্ধে সব মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বিএনপি এবার ভারতের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। লন্ডন থেকে হাউস অব লর্ডসের সদস্য অ্যালেক্স কারলিলি চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে দিল্লি যাচ্ছেন। তিনি দিল্লিতে ভারত সরকার এবং সাংবাদিকদের সঙ্গে মিলিত হবেন। তবে ভারত সরকারের কোন স্তরের প্রতিনিধির সঙ্গে মিলিত হবেন তা এখনো জানা যায়নি। জানা গেছে, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ব্রিটিশ এমপির ভারতে যাওয়ার যাবতীয় উদ্যোগ নিয়েছেন। সেই সময়ে ঢাকা থেকে বেগম জিয়ার আইনজীবীরাও ভারতে যাবেন। লর্ডস অ্যালেক্স মনে করেন, বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগগুলো ভিত্তিহীন। তাকে আসন্ন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার সুযোগ দেওয়ার জন্য আবেদন জানাবেন তিনি। লর্ডস অ্যালেক্স জানিয়েছেন, বাংলাদেশ সরকার তাকে ভিসা দিতে বিলম্ব করাতেই তিনি ভারতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। তিনি নিজেকে বেগম জিয়ার আন্তর্জাতিক আইনি পরামর্শক বলেও জানান। অবশ্য ব্রিটিশ এমপি ভারত যাওয়ার আগেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম ভারত যাচ্ছেন। তিনি ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব কালচার রিলেশনসের (আইসিসিআর) চেয়ারম্যান বিনয় সহস্রবুদ্ধের সঙ্গে বৈঠক করবেন। সহস্রবুদ্ধ হলেন বিজেপির রাজ্যসভার সদস্য। নিউইয়র্ক প্রতিনিধি জানান, সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন এবং খ্যাতনামা লেখক জেমস প্যাটারসনের যৌথভাবে লেখা  ‘দ্য প্রেসিডেন্ট ইজ মিসিং’ নামক একটি বই বিক্রি-বিষয়ক অনুষ্ঠানের আয়োজন হয় ‘বুক রিভ্যু’ নামক স্টোরে।  আমাজনে এ বিষয়ে নোটিস দেওয়া হয়। বলা হয়, মাথাপিছু ৩০ ডলারের টিকিট ক্রয় করে ঢুকতে হবে ওই অনুষ্ঠানে, এরপর অটোগ্রাফসহ বই দেওয়া হবে। দেড় ঘণ্টার মধ্যে ৫০০ টিকিট বিক্রি হয়ে যায়। প্রবেশমুখে ছিল দীর্ঘ লাইন। অতিক্রম করতে হয় সর্বোচ্চ নিরাপত্তাবেষ্টনী। সিক্রেট সার্ভিসের লোকজন বিভিন্নভাবে তল্লাশির পর মেটাল ডিটেক্টর দিয়েও পরখ করা হয় প্রত্যেক টিকিটধারীকে। এরপর যথারীতি লাইন দিয়েই বই হাতে ক্লিনটনের টেবিলে  পৌঁছান সবাই। অংশ নেওয়া প্রত্যেকেই তাকে শ্রদ্ধা জানান এবং হাসিমুখে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। ক্লিনটন নিজে থেকেও অনেকের কাছে নানান কিছু জানতে চান। সেখানেই বাংলাদেশি-আমেরিকান গোলাম ফারুক শাহীন তার কেনা বইয়ে অটোগ্রাফ সংগ্রহ ও শুভেচ্ছা বিনিময় করতে গিয়ে বাংলাদেশ প্রসঙ্গ উত্থাপন করেন। বেগম খালেদা জিয়ার কথা উল্লেখ করতেই তিনি মন্তব্য করেন, আমি জানি সবকিছু। ওয়ার্ল্ড পলিটিক্স ইজ নাউ ডিফিকাল্ট। পরে গোলাম ফারুক শাহীন ক্লিনটনকে বলেন, ‘৭৫ বছর বয়সী বেগম খালেদা জিয়াকে জেলে নেওয়া হয়েছে রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক মামলায় জড়িয়ে। মানবিক কারণেও তাকে জামিন দেওয়া হচ্ছে না। একটি মামলায় জামিন হলে আরেকটি দাঁড় করানো হচ্ছে।’ পরে এ বিষয়গুলো শুনলেও কোনো মন্তব্য করেননি ক্লিনটন। চুপচাপ শাহীনের বইয়ে অটোগ্রাফ দেওয়া শেষ করেন সাবেক এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট। জানা যায়, ‘দ্য প্রেসিডেন্ট ইজ মিসিং’ বইতে যুক্তরাষ্ট্রের রাজনৈতিক পরিস্থিতির টালমাটাল অবস্থার বর্ণনা করে ট্রাম্প-অস্থিরতা কীভাবে বিশ্বকে গ্রাস করছে তা তুলে ধরা হয়েছে। এমন অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্র যে একজন দক্ষ প্রেসিডেন্টের অনুপস্থিতি বোধ করছে তাই তুলে ধরা হয়েছে বইয়ে।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here