গুগল কেন কাজের জন্য সেরা- তার পাঁচ কারণ - Chuadanga News | চুয়াডাঙ্গা নিউজ | ২৪ ঘন্টাই সংবাদ

Sidebar Ads

test banner

Breaking

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Wednesday, January 2, 2019

গুগল কেন কাজের জন্য সেরা- তার পাঁচ কারণ

কর্মচারীদের প্রতিষ্ঠানে ধরে রাখার জন্য ভাতা একটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। দীর্ঘ পথ অতিক্রমে এটি কর্মীদের জন্য অনেক বড় প্রেরণা।
চাকরির ধরন ও বেতন ছাড়াও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে চাকরি প্রত্যাশীদের কাছে আকর্ষণীয় বিষয় জানতে একটি জরিপ পরিচালনা করে টাইমসজবস। জরিপের প্রতিবেদনে বলা হয়, বেশিরভাগ লোক (৩৬%) জানান, চাকরিতে তাদের কাছে সবচেয়ে আকর্ষণীয় জিনিস হচ্ছে ভাতা।
এই জরিপের মাধ্যমে উঠে আসে এমন কিছু কর্মক্ষেত্র যা অন্যগুলোর তুলনায় কর্মচারীদের কাছে বেশি আকর্ষণীয়। এমন আকর্ষণীয় কম্পানিগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে গুগল। এটি এমন এক কম্পানি যার ভেতর রয়েছে কর্মচারীদের জন্য বিলাসবহুল অভ্যন্তর, প্রচুর খাবারের কাউন্টার এবং ঘুমানোর ব্যবস্থা।
এমপ্লয়ার রেটিং প্লাটফর্ম জববাজ সেসব সুবিধাদির একটি তালিকা প্রকাশ করেছে যা গুগল এর কর্মচারীদের প্রদান করে।
নিচে এর পাঁচটি উল্লেখ করা হলো :
১। বিনামূল্যে খাবার
গুগলের ক্যাফেটেরিয়ায় প্রতিষ্ঠানটির কর্মচারীদের জন্য রয়েছে প্রতিদিন নানা স্বাস্থ্যকর ও সুস্বাদু খাবার সরবরাহের ব্যবস্থা। কর্মীরা সেখানে বিনামূল্যে খাবারের প্রতিটি আইটেম খেতে পারেন। এ ছাড়া রয়েছে বিনামূল্যে কফি ও জুস বার। 
২। শেখার সুযোগ
গুগলের বর্তমান এবং সাবেক কর্মচারীদের ৪৯ শতাংশের মতে, তারা স্মার্ট পরিচালকদের মাধ্যমে এমন পরিবেশ পেয়েছেন যেখানে প্রচুর শেখার সুযোগ।
৩। নতুন বাবা-মা হতে যাচ্ছে এমন দম্পতিদের ছুটি
নতুন মা হতে যাচ্ছেন এমন নারী কর্মচারীরা গুগলে বেতনসহ ২২ সপ্তাহ পর্যন্ত ছুটি পেয়ে থাকেন। আর দত্তক নেওয়া বাবা-মা পান বেতনসহ সাত থেকে ১২ সপ্তাহের ছুটি। জন্মের পরই নবজাতককে কম্পানি প্রদান করে 'বেবি বন্ডিং বোনাস' নামের একটি বোনাস। এ ছাড়া শিশুরা পায় বিনামূল্যে ডে-কেয়ার সুবিধা।
৪। বিনামূল্যে জিম ও ফিটনেস ক্লাস
বিনামূল্যে লোভনীয় খাবার গ্রহণের পর কর্মীদেরকে বাড়তি ক্যালোরি খরচের সুযোগও দেয় কম্পানি। ডেস্কে বিরতি পেলে তারা চলে যেতে পারেন জিম কিংবা ব্যায়ামের ক্লাসে।
৫। বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ
গুগল কালচার অবিশ্বাস্যভাবে সব কর্মচারীদের জন্য উন্মুক্ত। প্রত্যেকে একে অন্যের সঙ্গে তাঁদের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে পারেন। বর্তমান ও সাবেক কর্মীদের ২৯.৫ শতাংশ জানান, তাঁরা বছরে একবার বা দুইবার এমন প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। 

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here