ফাইজারের টিকা দেওয়া শুরু যুক্তরাষ্ট্রে - Chuadanga News | চুয়াডাঙ্গা নিউজ | ২৪ ঘন্টাই সংবাদ

Sidebar Ads

test banner

সর্বশেষ খরব

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Tuesday, December 15, 2020

ফাইজারের টিকা দেওয়া শুরু যুক্তরাষ্ট্রে


যুক্তরাষ্ট্রে ফাইজারের তৈরি করোনাভাইরাসের টিকার প্রয়োগ শুরু হয়েছে। আজ সোমবার নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ড জুশ মেডিকেল সেন্টারের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) নার্স সান্ড্রা লিন্ডসে নিউইয়র্কের প্রথম ব্যক্তি হিসেবে এই টিকা গ্রহণ করেন। যুক্তরাষ্ট্রে একেবারে শুরুতে যারা এই টিকা গ্রহণ করেছেন, তাদের একজন তিনি।


মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের খবরে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) কাছ থেকে ফাইজার-বায়োএনটেকের তৈরি টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন পাওয়ার পর আজ থেকে দেশটিতে এই টিকার প্রয়োগ শুরু হয়েছে। নিউইয়র্কের প্রথম ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম ধাপে পাওয়া ব্যক্তিদের একজন হিসেবে আজ সোমবার এই টিকা গ্রহণ করেন সান্ড্রা লিন্ডসে। স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ২০ মিনিটে তাঁকে এই টিকা দেওয়া হয়। এ সম্পর্কিত ভিডিওতে দেখা যায়, তাঁকে টিকা দিচ্ছেন নর্থওয়েল হেলথের কর্মীদের স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কিত বিভাগের করপোরেট পরিচালক ড. মিশেল চেস্টার।


টিকা গ্রহণের পর লিন্ডসে বলেন, ‘আমার হাত খুব ভালো ছিল। অন্য টিকা গ্রহণের মতোই মনে হয়েছে ব্যাপারটা। আমি ভালো বোধ করছি। এই সুযোগে আমি সামনের সারিতে লড়াই করে যাওয়া সবাইকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। আজ এক ধরনের আশার জন্ম হয়েছে আমার ভেতরে। মনে হচ্ছে আরোগ্য আসছে। আশা করি, এর মধ্য দিয়েই আমাদের ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে সময়ের শেষের শুরু হলো।’


সান্ড্রা লিন্ডসের এই টিকা গ্রহণে মাত্র কয়েক সেকেন্ড সময় লাগলেও এটি যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসেরই একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে। এই মহামারি স্বাস্থ্যকর্মীদের ওপর যে ঝুঁকিপূর্ণ কাজের বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে, তা লাঘবের শুরুর বিন্দু হিসেবে এই মুহূর্তটির বিশেষ মূল্য রয়েছে

নিজের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে মিশেল চেস্টার বলেন, টিকা দেওয়ার জন্য এর সঙ্গে থাকা যাবতীয় সরঞ্জাম বেশ যথাযথভাবে কাজ করেছে।


নর্থওয়েল হেলথের প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মাইকেল ডোলিং পরে এই দুই কৃষ্ণাঙ্গ নারীকে নিয়ে মঞ্চে ওঠেন। তিনি জানান, আঞ্চলিক এই হাসপাতাল ব্যবস্থায় এখন পর্যন্ত ১ লাখের বেশি কোভিড রোগী চিকিৎসা নিতে এসেছেন।


সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়, সান্ড্রা লিন্ডসের এই টিকা গ্রহণে মাত্র কয়েক সেকেন্ড সময় লাগলেও এটি যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসেরই একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে। এই মহামারি স্বাস্থ্যকর্মীদের ওপর যে ঝুঁকিপূর্ণ কাজের বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে, তা লাঘবের শুরুর বিন্দু হিসেবে এই মুহূর্তটির বিশেষ মূল্য রয়েছে।


এটি একটি বিশেষ মুহূর্ত। এই মুহূর্তটির জন্য সবাই অপেক্ষা করে ছিল এত দিন

মাইকেল ডোলিং, নর্থওয়েল হেলথের প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা

করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত অঞ্চল নিউইয়র্ক। এই নিউইয়র্কেরই একজন স্বাস্থ্যকর্মীর প্রথম সারির ব্যক্তিদের মধ্যে একজন হিসেবে এই টিকা গ্রহণের অনেক বড় প্রতীকী মূল্য রয়েছে। একই সঙ্গে টিকাদাতা ও টিকা গ্রহণকারীর লৈঙ্গিক ও বর্ণ পরিচয়ও একে বিশেষ করে তুলেছে।


আজ প্রথম ডোজটি গ্রহণের ২১ দিন পর লিন্ডসেকে দ্বিতীয় ডোজটি নিতে হবে। এর পর থেকে তিনি আরও ভালোভাবে ও ভয়হীনভাবে নিজের কাজ করে যেতে পারবেন। দায়িত্ব পালনের কারণে নিজের পরিবার ও প্রিয়জন থেকে তাঁকে আর আলাদা থাকতে হবে না।


টিকা দেওয়ার পর মাইকেল ডোলিং বলেন, ‘এটি একটি বিশেষ মুহূর্ত। এই মুহূর্তটির জন্য সবাই অপেক্ষা করে ছিল এত দিন।’


গত শুক্রবার এফডিএর অনুমোদনের পর সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনও (সিডিসি) ফাইজার-বায়োএনটেকের করোনা টিকার অনুমোদন দেয়। এর আগেই অবশ্য যুক্তরাজ্যে এই টিকার প্রয়োগ শুরু হয়। এ ছাড়া তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার সময়ই ২১ হাজারের বেশি লোক এই টিকা পেয়েছে, যা পরে কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে।


সিএনএন জানায়, গতকাল রোববার মিশিগানের পোর্টেজে ফাইজারের কারখানা থেকে যুক্তরাষ্ট্রের ৫০ অঙ্গরাজ্যের নির্ধারিত ৬০০টি স্থানের উদ্দেশে টিকা পাঠানো শুরু হয়। প্রথম চালানটি পৌঁছায় মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয় ও ওয়াশিংটন ডিসির জর্জ ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ে। আজ সোমবার আরও বেশ কিছু স্থানে এই টিকার চালান পৌঁছেছে। অঙ্গরাজ্যগুলোতে কারা কীভাবে প্রথম টিকা পাবে, তা নির্ধারণ করছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। সিডিসির নির্দেশনা অনুযায়ী তারা নিজেদের মতো করে বিষয়টির সমন্বয় করবে।


টিকা বিতরণের ক্ষেত্রে সিডিসির নির্দেশনা অনুযায়ী শুরুর ধাপে স্বাস্থ্যকর্মী ও নার্সিং হোমে বৃদ্ধরা এই টিকা পাবেন। এর পর ক্রমান্বয়ে ১৬ বছর ও তদূর্ধ্ব বয়সী ব্যক্তিরা এই টিকা পাবেন। সম্পূর্ণ কার্যকারিতা নিশ্চিতের জন্য ২১ দিন বিরতিতে ফাইজারের এই টিকার দুটি ডোজ গ্রহণ করতে হবে। পরীক্ষামূলক পর্যায়ে এই টিকা ৯৫ শতাংশ কার্যকর বলে প্রমাণিত হয়েছে।

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here